সম্পাদকীয় (সাক্ষাৎকার সংখ্যা)

সম্পাদকীয় (সাক্ষাৎকার সংখ্যা)

ভাগ
PaidVerts

সাওয়াল-জবাব, প্রশ্ন-উত্তর, সংলাপ, তর্ক, সাক্ষাৎকার- শব্দের ভিন্ মাত্রায় পয়দা হইল ভিন্নচোখ আবার। ডিসেম্বর ২০১৪ ইং ‘ভাষা সংখ্যা’র পর ৭ মাস কাজ করে বের হলো ‘সাক্ষাৎকার সংখ্যা’। এই সংখ্যার কোষগুলো: বিখ্যাত ফটোগ্রাফার নাসির আলী মামুন ভাইয়ের নেয়া প্রয়াত নজরুল সংগীত শিল্পী ফিরোজা বেগম এবং কবি জীবনানন্দ বিশেষজ্ঞ ক্লিন্টন বি সিলির অপ্রকাশিত সাক্ষাৎকার; জীবন, দর্শন, রাজনীতি ও সাহিত্য নিয়ে সলিমুল্লাহ খানের সাথে ভিন্নচোখের পক্ষ থেকে শমসেত তাবরেজীর সংলাপ; ফরিদ কবির এবং সাখাওয়াত টিপুর নেয়া প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক সমরেশ মজুমদারের পূর্বে ধারণকৃত সাক্ষাৎকার, ভিন্নচোখ থেকে নেয়া ডিএনএ বিশেষজ্ঞ ও বিজ্ঞানী শরীফ আখতারুজ্জামান এবং শিশুসাহিত্যিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আমীরুল ইসলামের সাক্ষাৎকার; সাওয়াল-জবাবে ভিন্নচোখের কবিতা আড্ডায় ৭ কবি; মমিন ইব্রাহিম কাঠ ঠোকরা পিতার মুখোমুখি হয়েছেন এবং ভিন্নচোখের পূর্ববর্তী সংখ্যা থেকে পুনর্মুদ্রণ করা হয়েছে ভিন্নচোখের নেয়া মানস চৌধুরীর সাক্ষাৎকার, অরূপ রাহীর সাক্ষাৎকার এবং নোয়াম চমস্কির ভাষান্তরিত সাক্ষাৎকার। গায়ত্রী স্পিভাকের সাক্ষাৎকারটি তর্জমা করে দেয়ার জন্য প্রিয় কবি জুয়েল মাজহার ভাইকে অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা।
এই সংখ্যার লিড আর্টিস্ট বাহরাম, এছাড়াও থাকছে কলকাতার শিল্পী সুভাশিষ সাহা এবং বাংলাদেশের ১৫ জন শিল্পীর শিল্পকর্ম। দীর্ঘ এক যুগ এস. এম. সুলতানকে অনুসরণ করে ক্যামেরার কবি মামুন ভাই, সুলতানের উপর তৈরী করেছেন ‘আলো-ছায়া ছবি’। নতুন সংযোজিত ফটোস্টোরিতে নাসির আলী মামুন ভাই তার ক্যামেরায় গল্প বলবেন এস. এম. সুলতানের। ভিন্নচোখের এই সংখ্যাটি উৎসর্গ করা হয়েছে সদ্য প্রয়াত ভাস্কর ‘নভেরা আহমেদকে’, তাঁর বিদেহী আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা।
যারা ভিন্নচোখ প্রকাশে সহায়তা করছেন এবং এ সংখ্যায় যারা বিজ্ঞাপন দিয়ে সহযোগিতা করছেন তাদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা। পাঠক ও শুভানুধ্যায়ীদের অব্যাহত সহযোগিতা এবং ভালোবাসায় বেঁচে আছে ভিন্নচোখ। ইতিমধ্যে প্রকাশনায়ও যাত্রা শুরু করেছ ‘ভিন্নচোখ প্রকাশনা’।
টিম ভিন্নচোখ ভাষা ও নদীর মতই সৃজনশীল এবং পরিবর্তনশীল। এই সংখ্যায় যারা সক্রিয়ভাবে কাজ করছে এবং যারা সময়-সুযোগের অভাবে সক্রিয়ভাবে কাজ করতে পারে নাইÑসবার অবদান কৃতজ্ঞতাসহ স্মরণ করছি। পরিশেষে বার বার চিরুনী বুলানোর পরও যেই ভুলগুলো শুধরানো যায় নাই কিন্তু আমরা চিনতে পারছি সেইগুলার একটা হিসাব দিতে চাই। ব্যাকরণে বাক্যেও শুদ্ধতার দিকে নজর দেই নাই। ইংরেজী শব্দগুলো অনেক জায়গায় রোমান হরফে রাখা, কথ্য ভাষার/বলবার ঢঙের আপাদমস্তক বজায় রাখতে পারছি কিন্তু উচ্চারণে জোর-ঝোঁ ইত্যাদি কিভাবে প্রকাশ করা যায় বাহির করতে পারি নাই। বানানের শুদ্ধতায় কিছুটা সীমাবদ্ধতা রয়ে গেল। অনিচ্ছাকৃত রয়ে যাওয়া ভুলক্রটির জন্য পাঠকের কাছে আন্তুরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী।
ভিন্নচোখের পরবর্তী সংখ্যাটি “শিশু-কিশোরদের” নিয়ে করার ইচ্ছে আছে। সারা দেশের শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে কাজটি করতে পারলে বড় একটি কাজ হবে বলে মনে করি, এ বিষয়ে পাঠক, বন্ধু-বান্ধব, শুভাকাংঙ্খী এবং সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা কামনা করি। সুন্দর বাংলাদেশের জন্য ভিন্নচোখ টিম স্বপ্ন দেখবে, কাজ করবে। সবার জন্য অনেক অনেক ভালোবাসা ও শুভ কামনা।

PaidVerts